এক কিশোরীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নদীয়া শান্তিপুর এলাকায়।

Please share this post

নিজস্ব সংবাদদাতা, নদীয়া

এক কিশোরীর রহস্য মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য পরিবারের অনুমান আত্মঘাতীর পেছনে প্রেম ঘটিত কারণ রয়েছে। ঘটনাটি নদীয়ার শান্তিপুর বেলঘড়িয়া দু নম্বর অঞ্চলের গবার চর তালতলা পাড়া এলাকার। জানাযায় মৃত কিশোরীর নাম সুস্মিতা বিশ্বাস বয়স (১৫) বছর। পরিবার সূত্রে জানা যায় ওই কিশোরীকে ঘরের ভেতরেই ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় তারা।

এরপর নিয়ে যায় হাসপাতালে সেখানেই কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে। সোমবার মৃতদেহটি উদ্ধার করে শান্তিপুর থানার পুলিশ এছাড়াও ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। কিশোরীর মায়ের কাছ থেকে জানা যায়, দিন কয়েক আগে ওই কিশোরী ফোন কিনে দেওয়ার জন্য দাবি করেছিল মায়ের কাছে, কিন্তু মা ফোন কিনে দিতে পারেনি। লুকিয়ে মায়ের ফোন থেকে কার সাথে কথা বলে ওই কিশোরী।

গতকাল রাত্রিকালীন কিশোরী ঘরের ভেতরেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হয়। কিশোরীর মায়ের দাবি, পরিবারে কারোর সাথে কোন ঝগড়া অশান্তি নেই তাহলে হঠাৎ কেন আত্মঘাতীর পথ বেছে নিল মেয়ে। তবে কিশোরীর আত্মঘাতীর পেছনে রহস্য লুকিয়ে আছে বলে অনেকটাই পরিষ্কার পরিবারের বক্তব্য অনুযায়ী। এখন এই ঘটনায় শোকস্তব্ধ কিশোরীর পরিবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.